Top 10 cryptocurrency in bengali | সেরা ১০ টি ক্রিপ্টোকারেন্সি বিনিয়োক করলে 2022 সালে কোটিপতি হতে পারেন

১। What is Bitcoin in Bengali ( বিটকয়েন কী )

আমাদের তালিকায় সবার First আছে এই কয়েনটি যেটা খুবই জনপ্রিয়। ক্রিপ্টোমার্কেটের সর্বপ্রথম কয়েনটি বিটকয়েন যেটি Satoshi Nakamoto নামে জাপানের এক ব্যক্তি 2008 সালে ক্রিপ্টোকারেন্সি কে আবিষ্কার করেন ।
বিটকয়েনের টোটাল সাপ্লাই হচ্ছে দুই কোটি 10 লাখের থেকেও বেশি আর বিটকয়েন কে বাড়ানো যাবে না, এর সাপ্লাই কম ও চাহিদা বেশি।

NoTop Holder’sPercentage
1. 10 5.59%
2. 20 7.83%
3. 30 11.33%
4. 40 14.1%

অন্য ক্রিপ্টো কারেন্সী তুলনায় হোল্ডিং এর সংখ্যা অনেকটাই কম । এর ফলে কোন স্ক্যাম ও ফ্রড হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কম থাকে । বিটকয়েনের ভবিষ্যৎ অনেকটা উজ্জ্বল যেকোনো দেশের গভর্নমেন্ট বিটকয়েন কে সাপোর্ট করছেন । আবার অনেক বড় বড় কোম্পানি বিটকয়েন পেমেন্ট হিসেবে গ্রহণ করছেন ।

বর্তমানে এই ডিজিটাল যুগ ধরে ক্রিপ্টোকারেন্সি তে কিছু অংশ বিনিয়োগ করলে ভবিষ্যতে ভালো জীবন পেতে পারেন । এটি একটি ভাল ক্রিপ্টোকারেন্সি যেখানে ইনভেস্ট করলে ভালো রিটার্ন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে 2022 সালে এপ্রিল মাসে দারুন রিটার্ন দিয়েছে |

আরো পড়ুন

২। What is Ethereum ( ইথেরিয়াম কী? )

আমাদের তালিকায় সেকেন্ড নাম্বারে অবস্থান । বিটকয়েনের তুলনায় এথেরিয়াম টেকনোলজি অনেক উন্নত । ইথেরিয়াম এর ব্লক চেন টেকনোলজি ব্যবহার করে অনেক ক্রিপ্টো কারেন্সি বানানো হয়েছে ।ইথেরিয়াম টেকনোলজি ব্যবহার করে অনেক App ডেভলপ করা হয়েছে ।

যেমন:- এই অ্যাপগুলি একটাই উদ্দেশ্য এটা একবার বানানো হলে তারপর আর কোন আপডেট করা বা পরিবর্তন করা অসম্ভব। বর্তমানে 2022 সালে অনেক মানুষ ও সেলিব্রেটি NFT বানানোর আগ্রহ দেখাচ্ছেন । NFT ভবিষ্যতে অনেক গ্রোথ হতে পারে । এথেরিয়াম NFT উপর কাজ করছে । এথেরিয়াম ভবিষ্যতে প্রাইস আগ্রহ বাড়ার সম্ভাবনা দেখাচ্ছে।

এখন অনেক চাঞ্চল্য খবর মেটাভের্স এটা একটা ভার্চুয়াল দুনিয়ায় নির্মাণ করছেন পৃথিবীর বিশাল কোম্পানি ফেসবুক । এই মেটাভের্স দুনিয়ার কিছু কেনাকাটা করার জন্য ETH কয়েনের ব্যবহার করা যেতে পারে । ইথেরিয়াম কোম্পানির পরিচালকগণ Metavers এর প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছেন ।


ETH এর চারটি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট এর ব্যাপারে তোমাদের সঙ্গে আলোচনা করলাম । আপনারা ভালো করে এনালাইসিস করে তারপর ইনভেস্ট করুন ।

Lates News ইথেরিয়াম 2022 সালের ইনভেস্টরদের ভালো রিটার্ন দিতেপারে।

৩। What is Binance Coin ( BNB ) বাইনান্স কী

বর্তমানে বাইনান্স পৃথিবীর সবথেকে বড় ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ । 2017 সালে BNB নামে ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরি করে । BNB হোল্ড করে রাখলে বাইনান্স তাদের গ্রাহকদের ট্রানজেকশন ফী অনেক কম দিতে হয় আরো অনেক সুবিধা দিয়ে থাকে । ক্রিপ্টোকারেন্সি টপলিস্টে চার নম্বরে অবস্থান করে চলেছে । BNB অনেক দেশে শপিং ও পেমেন্ট হিসেবে গ্রহণ করা হচ্ছে ।

Binance একটি এক নম্বর কিপটা এক্সচেঞ্জ এর ট্রেডিং ভলিউম অনেকটাই বেশি কোন ক্রিপ্টোকারেন্সি লিস্ট হলে তার দাম আগুনের মত বাড়তে থাকে । Binance তাদের Market NFT কে Buy ও Sell করার বিকল্প উপায়ে দিয়েছে । খুবই একটি ভালো ইনভেস্টের উপায় দেখতে পাচ্ছি ।

৪। What is SHIBA INU ( শিবা ইনু কী )

২০২১ সাল থেকে অনেক চর্চার ছড়িয়ে পড়েছে । সাধারণ মানুষ থেকে বড় বড় সেলিব্রিটি মুখে এর নাম ছড়িয়ে পড়েছে । এই কয়েন জন্ম ২০২০ সালে এটি একটি Meme Coin ২০২১ সাল থেকে আগুনের মতন দাম বাড়তে থাকে। এই কয়েনটি প্রায় সব এক্সচেঞ্জেই দেখতে পাবেন । শিবা ইনু কয়েনের নাম জাপানের অনেক প্রিয় কুকুর থেকে নেওয়া হয়েছে ।

শিবা ইনু অন্যদের তুলনায় সবথেকে বেশি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটিভ থাকে । কোন সমস্যা হলে যোগাযোগ করতে পারে। শিবা ইনু সাপ্লাই অনেকটাই বেশি তার জন্য দাম এক টাকা পৌঁছানোয় অনেকটাই কঠিন । এই কারণে অনেক পরিমাণে Shiba inu Burn করা হচ্ছে ।

২০২১ থেকে ২০২২ সালের মধ্যে 16 লক্ষ% রিটার্ন দিয়েছে। আপনি যদি ২০২১ সালে ১০০০ টাকা ইনভেস্ট করতেন তাহলে ২০২২ সালে কোটিপতি হতে। এখনও এই কয়েন টির দাম বাড়ার সম্ভাবনা আছে। শিবা ইনু মেটাভের্স ও ভার্চুয়াল দুনিয়ায় যাওয়ার পরিকল্পনা চলছে।

৫। What is Cate Coin ( ক্যাট কয়েন কি )

পৃথিবীতে অনেক পরিমাণে এনিমেল লাভার আছেন শিবা ইনু মতো কেট কয়েন কয়েনের প্রাইস বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে ।
এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্যাট কয়েন বড়ো জায়গা তৈরি করছে |

সাল কয়েনের নাম
২০১৩ বিটকয়েন
২০২১ শিবা ইনু
২০২২ ক্যাট কয়েন ?

অনেকেই দাবি করছে ক্যাট কয়েন ২০২২ সালে ভালো রিটার্ন আশঙ্কা করা হচ্ছে ।বিরাট সুখবর ক্যাট কয়েন তাদের মোবাইল ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ App লঞ্চ করতে চলেছে।

৬। What is Decentraland Mana ( ডিসেন্ট্রাল্যান্ড কি )

ভার্চুয়াল দুনিয়ায় এই কয়েন গুরুত্ব অনেক বড় । এই কয়েন টি তৈরি করেন Ariel Meilich নামক ব্যাক্তি। এই কয়েন প্রতিষ্ঠিতদের ভবিষ্যতের Metaverse বা ভার্চুয়াল দুনিয়া কেমন হবে এর একটা ঝলক তারা তাদের ওয়েবসাইটে ফুটিয়ে তুলেছে ।আপনার ওয়েবসাইটে গিয়ে ভবিষ্যতের গেম খেলতে পারে।


সেখানে জমি, জায়গা কিনে ঘরবাড়ি নিজের মত একটা ভার্চুয়াল জগৎ তৈরি করতে পারেন, তার বদলে কিছু মানা কয়েন লাগবে। এটা একটা ভালো পরিকল্পনা ভবিষ্যতে হয়তো অনেকটা কাজে লাগবে, এই কয়েন ইনভেস্ট করে লং টাইম এর জন্য ভালই রিটার্ন আশা করা যেতে পারে।

৭। What is Cardano (ADA) কারডানো কি

Charles Hoskinson

এই কয়েন টি আবিষ্কার করেন, তিনি ইথেরিয়াম ব্লকচেইন এর কো-ফাউন্ডার রয়েছিলেন।
Cardano কয়েন কে তৃতীয় জেনারেশনের ক্রিপ্টোকারেন্সি বলা হয়।

এই কয়েনটি অন্য তুলনায় ট্রানজেকশন ফী অনেকটাই কম। বিটকয়েন, ইথেরিয়াম ইত্যাদি ব্লকচেন টেকনোলজির তুলনায় অনেক কম বিদ্যুৎ খরচ করে,এই কারণে অনেকে কে পরিবেশবান্ধব ক্রিপ্টো কারেন্সি বলে থাকে।

প্রথম ক্রিপ্টোকারেন্সি যা Proof Of Stake মন্ডলের ভিত্তিতে কাজ করে। টোটাল সাপ্লাই এর সংজ্ঞা অনেকটাই কম ডিমান্ড বেশি ও সাপ্লাই কম অনেক ভালো ক্রিপ্টোকারেন্সি ভবিষ্যৎতে হয়তো আরো গ্রো হতে পারে।

৮। What is Helium (HNT) হিলিয়াম কী

এই কয়েনটি 2019 সালে জন্ম হয়,হিলিয়াম একটি নেটওয়ার্কিং ক্রিপ্টো কয়েন , হিলিয়াম নিজস্ব নেটওয়ার্ক IOT ডেভলপ করা হয়েছে। অনেকটা কম খরচে কাজ করে, আপনিও এই নেটওয়ার্ক বাড়িতে বসাতে পারেন। হিলিয়াম হস্পট নামক যন্ত্রটি অনলাইনে সার্চ করে দেখতে পারেন।

বিদেশে এ যন্ত্রটি ব্যবহার করা হচ্ছে ভারত-বাংলাদেশে একটু একটু করে প্রচলন শুরু হয়ছে। হিলিয়াম ভবিষ্যৎ টেকনোলজির উপর কাজ করছে, যেমন ব্লক চেন সঙ্গে তুলনা করতে পারি। হিলিয়াম 5G ও শুরু করা হবে। খুবই একটা ভালো প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করে চলেছে লং ইনভেস্ট এর জন্য অনেকটা ভালো।

৯| What is Solana ( সোলানা কী )

এই কয়েন কে অনেক নিউজ প্রমোট করা হচ্ছে ,ব্লকচেন টেকনোলজি কে ডেভলপ ও পরিবর্তন করছে। সোলানা ব্লক চেন টেকনোলজি উনিক হাইব্রিট অন্যান্য তুলনায় অনেক ফাস্ট ও খরচ কম।

এই টেকনোলজি ব্যবহার করে অনেক সহজে অ্যাপ ডেভলপ করা যেতে পারে। ৪০০ টির বেশি Crypto ,NFT ,APP ডেভলপ করা হয়েছে। টুইটার ও টেলিগ্রামে ফলোয়ার অনেক বেশি এটি একটি ভালো ক্রিপ্টোকারেন্সি।

১০। What is Polygon Matic ( পলিগন ম্যাটিক কি )

পলিগন কয়েন 2019 সালে লঞ্চ করা হয়। কোন ক্রিপ্টোকারেন্সি কোন না কোন কাজে ব্যবহার করার উদ্দেশে বানানো হয়। ইথেরিয়াম কয়েন দিয়ে ১০০০ টাকার কোন কিছু Buy করলে 400 টাকার মত গ্যাস ফী দিতে হতো এই সমস্যাকে পূরণ করার জন্য পলিগন মাটিকে কয়েন ডেভলপ করা হয়।

বর্তমানে পলিগন এমন ব্লকচেইন টেকনোলজি উপর কাজ করছে যার গ্যাস ফী অনেক টা কম । পলিগন কয়েন দিয়ে বিনামূল্যে NFT তৈরি করতে পারবেন |

*আজ কে আমরা কি কি জানলাম

আজ কে আমরা শিখলাম সেরা ১০ টি ক্রিপ্টোকারেন্সি ( Best cryptocurrency 2022 in Bengali ) আজকের আটিক্যালটি ভালো লাগলে আপনার ফ্রেন্ডের সঙ্গে শেয়ার করবেন,
এছাড়া, আটিক্যালটি সম্বন্ধে কিছু প্রশ্ন থাকলে নিচে comment করে জানাবেন।


ক্রিপ্টো নিয়ে যে আটিক্যালটি লিখেছি সম্পূর্ণ ইন্টারনেট ও খবর থেকে নেওয়া। ক্রিপ্টো কারেন্সী সম্বন্ধে সঠিক ধারণা দেওয়া মুশকিল , তাই নিজের রিস্ক এ ইনভেস্ট করুণ।

Leave a Comment